প্রধানমন্ত্রীর স্বর্ণপদক পাচ্ছেন সরকারি কলেজের সোনিয়া

মাগুরা সরকারি হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ থেকে অভূতপূর্ব ফলাফল করে দেশসেরা হয়ে প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণপদক পাচ্ছেন সোনিয়া পারভীন। অর্থনীতি বিভাগে ২০১০-১১ শিক্ষাবর্ষের অনার্সের ফাইনাল ইয়ারে সম্প্রতি ঘোষিত ফলাফলে মোট গ্রেড পয়েন্ট ৪ এর মধ্যে ৩.৭৩ পয়েন্ট পেয়েছেন সোনিয়া। সম্প্রতি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিক্ষা নিয়ন্ত্রক প্রফেসর বদিউজ্জামান টেলিফোনে কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর শাহাজ উদ্দিনকে এ তথ্য জানান। একই সঙ্গে তিনি ওই অনুষ্ঠানের জন্য কলেজ থেকে সোনিয়ার জীবন বৃত্তান্ত ও আনুষাঙ্গিক কাগজপত্র চেয়ে নেন।
সোনিয়া মোবাইলে এই প্রতিনিধিকে জানান- বাবা মা আর ছোট বোনকে নিয়ে তার ছোট্ট পরিবার। বাবা রফিকুল ইসলাম শ্রীপুরের দ্বারিয়াপুর গ্রামে নিজ এলাকায় ছোটখাট ব্যবসা করেন। মা জাহানারা বেগম গৃহিনী। বাবা মায়ের উৎসাহেই তার লেখাপড়ায় ভাল করার অন্যতম অনুপ্রেরণা। সে সব সময়ই সে চেষ্টা করেছে ভালভাবে লেখাপড়া করে প্রতি বর্ষেই ভাল ফলাফল ধরে রাখতে। ফলে অনার্স ফাইনালে সে দেশসেরা হতে পেরেছে। গত বছর ২৭ সেপ্টেম্বর তাদের অনার্স ফাইনাল রেজাল্ট হয়। সেখানে সে বুঝতে পারে যে তার রেজাল্ট ভাল হয়েছে। কিন্তু তা যে দেশ সেরার গৌরব অর্জন করছে তা তিনি বুঝে উঠতে পারেননি। শিক্ষকদের কাছে এ তথ্য জেনে তিনি খুবই খুশি। তিনি এজন্য তাঁর ডিপার্টমেন্টের প্রধান দিদার আলী জোয়ারদার ও মো: রেজাউর রহমান স্যারের কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।
কলেজের অর্থনীতি বিভাগের প্রধান সহকারি অধ্যাপক মো: দিদার আলী জোয়ারদার জানান- কলেজে ভর্তির পর থেকেই সোনিয়া ক্লাসে অত্যন্ত আন্তরিক ছিল। সে বেশীরভাগ সময়ই ক্লাসে উপস্থিত থাকতো। প্রতিনিয়ত সে শিক্ষকদের সাথে নিবিড় যোগাযোগ রেখে প্রতিদিনের পড়া প্রতিদিন সম্পন্ন করেছে। মধ্যবিত্ত পরিবারের মেধাবী এ মেয়েটিকে সরকারি প্রনোদনা দিলে আরো অনেক বড় কিছু করে দেখাবে বলে আশাবাদ ব্যাক্ত করেন তিনি।
কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর শাহাজ উদ্দিন জানান- সোনিয়ার ভাল ফলাফলের কারণে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে তাকে স্বর্ণ পদক দেয়া হবে। সে আমাদের কলেজের গর্ব। তার ভবিষ্যত শিক্ষা জীবন যেন আরো সুন্দর সাবলীল হয়। একই সঙ্গে এ ফলাফল যেন সে ধরে রাখতে পারে তার জন্য কলেজের পক্ষ থেকে যথাসাধ্য চেষ্টা করা হবে।

About Avi Sharma

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Translate »