এমপি লিটন হত্যা মামলার রায়ে খুশি পরিবার

গাইবান্ধা-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসনের আওয়ামী লীগ দলীয় সংসদ সদস্য মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন হত্যা মামলায় সাবেক এমপি কাদের খানসহ ৭ জনের ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার দুপুরে গাইবান্ধার জেলা ও দায়রা জজ দিলীপ কুমার ভৌমিক এ রায় ঘোষণা করেন।

মামলার অন্য আসামিরা হলেন কাদের খানের পিএস শামসুজ্জোহা, গাড়িচালক হান্নান, মেহেদী, শাহীন, চন্দন ও রানা। এ মামলায় মোট আসামি ছিলেন ৮ জন, তার মধ্যে সুবল নামে এক আসামি মারা গেছেন।

রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট শফিকুল ইসলাম বলেন, রাষ্ট্রপক্ষ থেকে প্রমাণ করতে সক্ষম হতে পেরেছি। তাই আসামিদের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড দেয়া হয়েছে।

অন্যদিকে আসামিপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট মঞ্জুর মোর্শেদ বাবু বলেন, আসামি ন্যায়বিচার পাননি। কাদের খান হাইকোর্টে আপিল দায়ের করবেন।

রায় নিয়ে লিটনের স্ত্রী বলেন, আমি এ রায়ে সন্তুষ্ট। নেত্রী দেশ চালাছেন বলেই আমি আজকেও ন্যায় বিচার পেয়েছি।

২০১৬ সালের ৩১ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় সুন্দরগঞ্জ উপজেলার সর্বানন্দ ইউনিয়নের সাহাবাজ গ্রামের মাস্টারপাড়ার নিজ বাড়িতে দুর্বৃত্তের গুলিতে আহত হন মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন। পরে তাকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানেই তার মৃত্যু হয়।

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Translate »