গুরুদাসপুরে পুকুরে ৪ শিশুর লাশ

নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলার বিয়াঘাট ইউনিয়নের বাবলাতোলা এলাকার একটি পুকুর থেকে একই পরিবারের চার শিশুর ভাসমান লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে আটটার দিকে তাদের লাশ উদ্ধার করা হয়। পানিতে ডুবে শিশুদের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। এই ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।
নিহত শিশুরা হলো উপজেলার বিয়াঘাট এলাকার বাবলাতোলা এলাকার মিন্টু হোসেনের দুই সন্তান রাব্বানী হোসেন (৩) এবং মেয়ে মেঘলা খাতুন (৭) এবং একই এলাকার শিমুল হোসেনের দুই মেয়ে রাত্রী খাতুন (৬) ও সন্ধ্যা খাতুন (৮)।
গুরুদাসপুর শহর থেকে ছয় কিলোমিটার উত্তরে বাবলাতোলা গ্রামটি। বিয়াঘাট ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হোসেন সত্যতা নিশ্চিত করছেন।
বিষয়টি রাত সাড়ে নয়টার দিকে নিশ্চিত করেন গুরুদাসপুর থানার ভারপ্রাপ্ত (ওসি) কর্মকর্তা দিলীপ কুমার। তিনি বলেন, আজ বেলা তিনটার দিকে বাড়ির পাশের একটি পুকুরপাড়ে খেলতে যায় চার শিশু। সন্ধ্যার পরও বাড়ি না ফেরায় খোঁজাখুঁজি করতে থাকে পরিবারের লোকজন। পরে রাত সাড়ে আটটার দিকে পুকুরের পানিতে এক শিশুর লাশ দেখতে পান স্থানীয় ব্যক্তিরা। পরে নিহত শিশুদের পরিবারের লোকজন এসে পানিতে খোঁজাখুঁজি করে আরও তিন শিশুর লাশ উদ্ধার করে।
ওসি ঘটনাস্থল থেকে মুঠাফোনে প্রথম আলোকে বলেন, পানিতে ডুবেই শিশুদের মৃত্যু হয়েছে বলে পরিবারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে। এই ঘটনায় পুরো এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।
গুরুদাসপুরের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. মনির হোসেন বলেন, তিনি ঢাকায় ছিলেন। ঢাকা থেকে গুরুদাসপুরে পৌঁছার পরপরই তিনি মুঠোফোনে খবরটি শুনেছেন। এর বেশি কিছু তিনি বলতে পারবেন না।

About Avi Sharma

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Translate »